রাজশাহী অঞ্চলে অবশেষে এলো প্রাণ জুড়ানো বৃষ্টিরাবিতে ভাস্কর্য উল্টানোর ঘটনায় লিখিত অভিযোগরাজশাহীর পৃথক ঘটনায় ১২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ছিনতাইবাঘায় বীষমুক্ত বিদেশে রপ্তানীযোগ্য আম উৎপাদন বিষয়ক প্রশিক্ষণলাক্স সুন্দরী থেকে সুপ্রিম কোর্টের ব্যারিস্টারক্যামেরা রেখে আহত শিশুদের বাঁচালেন সাংবাদিকধর্মান্তরিত হয়ে হিন্দু-মুসলিম দুই স্ত্রী নিয়ে বিপাকে স্বামী, অতঃপর জেল হাজতেতিন মাসের শিশুকে আদালতে তলব!মমতার বিরুদ্ধে গরুর মাংস খাওয়ার অভিযোগশিব মন্দিরে বাজবে মাইক, সমঝোতায় হিন্দু-মুসলিমফেসবুকে দুই বাকপ্রতিবন্ধীর প্রেম, লন্ডন থেকে বাংলাদেশেবাঁশের খুঁটিতে বিদ্যুৎ জিআই পাইপে গ্যাসএকটি রসগোল্লার কারণে ভেঙে গেল বিয়ে!রাতে গৃহবধূর ঘরে পুলিশ, তালা লাগিয়ে গণপিটুনিপাবনায় যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ৩
০১ মে, ২০১৭
        

স্ত্রীকে খুন করে মৃতদেহর সঙ্গে সহবাস স্বামীর

প্রকাশঃ ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

অনলাইন ডেস্ক: স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করে লাশের সঙ্গে বসবাস করছিলো স্বামী। মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ স্বামী সুবোধের বাড়ি থেকে স্ত্রী মনীষার ক্ষত-বিক্ষত দেহ উদ্ধার করে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মনীষার দেহ কুচি কুচি করে কেটে ফেলেছিল সুবোধ। তার কাটা মাথা বাড়ির দেওয়ালে ঝোলানো অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে। ভারতের পূর্ব দিল্লির মধুবিহারের এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, সুবোধ এবং মনীষার দাম্পত্য কলহ লেগেই থাকত। মাঝেমধ্যেই সে মনীষা এবং দুই কন্যাসন্তানকে বেধড়ক মারধর করত। জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে, ঘটনার দিনও স্ত্রীকে বারবার আঘাত করেছিল সে। আর মারের চোটেই মৃত্যু হয় মনীষার। বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয় তার চেষ্টাও করেছিল সে। মৃতদেহর সঙ্গেই সহবাস করছিল সে। কিন্তু এতেও বিশেষ লাভ হয়নি। দু'দিন মৃতদেহ ঘরের মধ্যে রেখে দেওয়ার পর, সেখান থেকে পচা গন্ধ বের হতে শুরু করে। এরপরেই স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন।

জেরায় সুবোধ স্বীকার করে নিয়েছে অন্য নারীর সঙ্গে সম্পর্কের কথা। জানিয়েছে, ছ'মাস আগে মুনিয়া নামের এক নারীকে বিয়ে করে সে। আর মুনিয়ার সঙ্গে এই সম্পর্কের কথাই জানতে পেরেছিল মনীষা। আর এরপরেই বিবাহবিচ্ছেদ চান তিনি। কিন্তু এরপরই অশান্তি বাড়তে থাকে সুবোধ আর মনীষার। আর অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে মনীষাকে হত্যা করে সুবোধ