রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নেপালি শিক্ষার্থী আটকসিলেটের আতিয়া মহলে আছে নব্য জেএমবির অন্যতম নেতা রাজশাহীর জঙ্গি মুসা!রাজশাহীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে স্বাধীনতা দিবসকাঙালিভোজে আ. লীগের সংঘর্ষ, ছাত্রলীগকর্মী নিহতরাজশাহীর চারঘাটে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারবিভিন্ন স্থানে আত্মঘাতি হামলা ।। রাজশাহীতে নিরাপত্তা জোরদার ৮৫টা বিয়ে করেছি, একঘেয়ে লাগে না : মনামী ঘোষরাজশাহী কলেজে মসজিদের ইমামের সঙ্গে ছাত্রলীগের হাতাহাতিভয়ঙ্কর গণহত্যা, ২৫ মার্চের অপারেশন সার্চ লাইট ।। রাজশাহীর ইতিহাসে আজও নিখোঁজ ১১১৩ জেলায় কালবৈশাখী ঝড়ের হুঁশিয়ারিরাজশাহীর মোহনপুরে কয়েকশ মানুষের সেচ্ছাশ্রম, আড়াই কিলোমিটার রাস্তা সংস্কাররাজশাহীতে সন্তানদের নিষ্ঠুরতা ।। এক মুঠো ভাতের জন্য রোগী সেজে হাসপাতালে বৃদ্ধ!নাটোরে চার দোকান ভস্মীভূত৩ দিনের ছুটি, ঘরমুখো মানুষ ।। ঢাকা-রাজশাহী-চাঁপাই মহাসড়কে চলছে গাড়ি থেমে থেমেরাজশাহীর ৫০ মুক্তিযোদ্ধা পেলেন আর্থিক সহায়তা
২৮ মার্চ, ২০১৭
        

নাটোরে মাকে নির্যাতন করায় বাবাকে কুপিয়ে জখম করেছে এক ছেলে

প্রকাশঃ ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

নাটোরঃ নাটোরে এক মাকে নির্যাতন করায় বাবাকে কুপিয়ে জখম করেছে এক ছেলে। গুরুতর আহত অবস্থায় জাহাঙ্গীর হোসেন (৪৫) ও স্ত্রী হেলেনা খাতুনকে (৩৮) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাতে সদর উপজেলার পাইকেরদোল গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে পারিবারিক বিষয় নিয়ে জাহাঙ্গীর হোসেনরে সাথে তার স্ত্রী হেলেনা খাতুনের ঝগড়া বাধে। ঝগড়া চলাকালে জাহাঙ্গীর তার স্ত্রীকে মারপিট করতে থাকে। এর এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রী হেলেনাকে কুপিয়ে জখম করে। এতে ছেলে নয়ন হোসেন তার মাকে রক্তাক্ত দেখে ক্ষুদ্ধ হয়ে বাবা জাহাঙ্গীরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়।

এসময় প্রতিবেশীরা ছুটে এসে রক্তাক্ত স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই স্বামী-স্ত্রী দুজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নাটোর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবুল কালাম আজাদ জানান, গতকাল মধ্যরাতে রক্তাক্ত অবস্থায় জাহাঙ্গীর আলম ও হেলেনাকে হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নাটোর সদর থানার ওসি মশিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার পর থেকে আহতদের ছেলে নয়ন হোসেন পলাতক রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে এ বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ করেনি কেউ।