রাজশাহী অঞ্চলে অবশেষে এলো প্রাণ জুড়ানো বৃষ্টিরাবিতে ভাস্কর্য উল্টানোর ঘটনায় লিখিত অভিযোগরাজশাহীর পৃথক ঘটনায় ১২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ছিনতাইবাঘায় বীষমুক্ত বিদেশে রপ্তানীযোগ্য আম উৎপাদন বিষয়ক প্রশিক্ষণলাক্স সুন্দরী থেকে সুপ্রিম কোর্টের ব্যারিস্টারক্যামেরা রেখে আহত শিশুদের বাঁচালেন সাংবাদিকধর্মান্তরিত হয়ে হিন্দু-মুসলিম দুই স্ত্রী নিয়ে বিপাকে স্বামী, অতঃপর জেল হাজতেতিন মাসের শিশুকে আদালতে তলব!মমতার বিরুদ্ধে গরুর মাংস খাওয়ার অভিযোগশিব মন্দিরে বাজবে মাইক, সমঝোতায় হিন্দু-মুসলিমফেসবুকে দুই বাকপ্রতিবন্ধীর প্রেম, লন্ডন থেকে বাংলাদেশেবাঁশের খুঁটিতে বিদ্যুৎ জিআই পাইপে গ্যাসএকটি রসগোল্লার কারণে ভেঙে গেল বিয়ে!রাতে গৃহবধূর ঘরে পুলিশ, তালা লাগিয়ে গণপিটুনিপাবনায় যাত্রীবাহী বাস উল্টে নিহত ৩
০১ মে, ২০১৭
        

১৪০ কোটি টাকা ব্যায়ে রাজশাহীতে শুরু হচ্ছে চারলেন সংযোগ সড়কের কাজ

প্রকাশঃ ০১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭

রাজশাহী: রাজশাহী নগরীর আর্থসামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন, নগরীর আধুনিকায়ন, বাণিজ্যিক বিস্তৃতি বাড়ানো ও মূল নগরীর সঙ্গে বাইপাস সড়কের সংযোগ বাড়াতে ১৩৯ কোটি ৮৭ লাখ টাকা অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এ অর্থ ব্যয়ে নাটোর রোড (রুয়েট) হতে রাজশাহী বাইপাস পর্যন্ত চার লেন বিশিষ্ট ৫ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

ঢাকার শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এ সভায়  নতুন ও সংশোধিত মোট আটটি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়।

রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (আরডিএ) অথরাইজড অফিসার আবুল কালাম আজাদ জানান, এ প্রকল্পের মাধ্যমে নগরীর অক্ট্রয়ের মোড় থেকে রুয়েট ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝখান দিয়ে খড়খড়ি বাইপাস মোড় পর্যন্ত চার লেন বিশিষ্ট পাঁচ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করা হবে। এ সড়ক নির্মাণে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেললাইনের ওপর কোনো লেভেল ক্রসিং থাকবে না। ওভারপাস সড়ক নির্মাণ করা হবে। ফ্লাইওভারের মতো রেললাইনের ওপর দুই লেন বিশিষ্ট সড়ক নির্মাণ করা হবে।

আবুল কালাম আজাদ জানান, ইতোমধ্যে এ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে গেছে। জমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। ওই এলাকায় যেসব বাড়িঘর ছিল ক্ষতিপূরণ দিয়ে তা অপসারণ করা হয়েছে। কারণ গত বছর এ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন পেয়েছে। তখন দুই লেন বিশিষ্ট সড়ক নির্মাণের কথা ছিল। এইজন্য বাজেট ধরা হয়েছিল ৮৭ কোটি টাকা। পরে বুধবার সংশোধিত ১৩৯ কোটি ৮৭ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন করা হয়েছে। কারণ এ সড়ক এখন চার লেন বিশিষ্ট নির্মাণ করা হবে।

এই সড়ক নির্মাণের ফলে নগরবাসী কী ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবে জিজ্ঞেস করা হলে আবুল কালাম আজাদ জানান, যেকোনো বিস্তৃত পরিসরের সড়ক নির্মাণ করা হলে তা নগরীর মুভমেন্ট বাড়িয়ে দেয়। সড়ককে কেন্দ্র করে কমার্শিয়াল অ্যাকটিভিটি (বাণিজ্যিক কর্মপরিধি) বেড়ে যায়। বড় বড় ভবন নির্মিত হয়। দোকানপাট তৈরি হয়। এছাড়া মূল বিষয় হচ্ছে নগরীর সঙ্গে বাইপাস সড়কের সংযোগ স্থাপন। যাতে করে নগরীর যেকোনো স্থান থেকে বাইপাস সড়কের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করা যায়। এইজন্য কোর্ট স্টেশন থেকে দারুসা রোড, মেডিকেল কলেজ বন্ধ গেট থেকে সিটি হাট ও ভদ্রা মোড় থেকে নওদাপাড়া বাইপাস সড়ক নির্মাণ করা হচ্ছে। এছাড়া নাটোর থেকে আসা বাসগুলোও এই সড়ক দিয়ে বাইপাসে যেতে পারবে। ফলে নগরীর ওপর যানবাহনের চাপ কমবে।