রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নেপালি শিক্ষার্থী আটকসিলেটের আতিয়া মহলে আছে নব্য জেএমবির অন্যতম নেতা রাজশাহীর জঙ্গি মুসা!রাজশাহীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে স্বাধীনতা দিবসকাঙালিভোজে আ. লীগের সংঘর্ষ, ছাত্রলীগকর্মী নিহতরাজশাহীর চারঘাটে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারবিভিন্ন স্থানে আত্মঘাতি হামলা ।। রাজশাহীতে নিরাপত্তা জোরদার ৮৫টা বিয়ে করেছি, একঘেয়ে লাগে না : মনামী ঘোষরাজশাহী কলেজে মসজিদের ইমামের সঙ্গে ছাত্রলীগের হাতাহাতিভয়ঙ্কর গণহত্যা, ২৫ মার্চের অপারেশন সার্চ লাইট ।। রাজশাহীর ইতিহাসে আজও নিখোঁজ ১১১৩ জেলায় কালবৈশাখী ঝড়ের হুঁশিয়ারিরাজশাহীর মোহনপুরে কয়েকশ মানুষের সেচ্ছাশ্রম, আড়াই কিলোমিটার রাস্তা সংস্কাররাজশাহীতে সন্তানদের নিষ্ঠুরতা ।। এক মুঠো ভাতের জন্য রোগী সেজে হাসপাতালে বৃদ্ধ!নাটোরে চার দোকান ভস্মীভূত৩ দিনের ছুটি, ঘরমুখো মানুষ ।। ঢাকা-রাজশাহী-চাঁপাই মহাসড়কে চলছে গাড়ি থেমে থেমেরাজশাহীর ৫০ মুক্তিযোদ্ধা পেলেন আর্থিক সহায়তা
২৮ মার্চ, ২০১৭
        

জেঁকে বসছে শীত, সর্বনিম্ন তামপাত্রা রেকর্ড

প্রকাশঃ ১৪ জানুয়ারী, ২০১৭

ষড় ঋতুর বাংলাদেশে পৌষ ও মাঘ মাস নিয়ে শীতকাল। ইংরেজি মাসের হিসেব অনুযায়ী ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে শুরু করে ফেব্রুয়ারির মাঝমামাঝি পর্যন্ত বাংলাদেশে শীত অনুভূত হয়। তবে এদেশে শীতের আগমনটা হয় সাধারণত আরো আগে। কিন্তু এবার যেন কিছুতেই শীতের দেখা মিলছিলো না। ডিসেম্বর শেষ হয়ে জানুয়ারিতেও রাজধানীতে তেমন শীত নেই। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে রাজধানীতেও বেশ শীত অনুভূত হচ্ছে।

বলা যেতে পারে পৌষের শীত নগরবাসীকে তেমন কাঁপন ধরাতে পারেনি। আজ শুক্রবার পৌষ মাসের শেষদিন। আগামীকাল শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে মাঘ মাস। গ্রাম বাংলায় কথিত আছে মাঘের শীতে নাকি বাঘও পালিয়ে যায়। তবে মাঘ মাস শুরুর একদিন আগেই দেশের উত্তরাঞ্চলের রংপুর বিভাগে ব্যাপক শীত পড়েছে। আজ শুক্রবার নীলফামারীর রাজারহাটে রেকর্ড করা হয়েছে এ মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আজ সকালে রাজারহাটের তাপমাত্রা ছিল মাত্র ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পঞ্চগড় জেলাতেও একই রকম শীতের প্রকোপ রয়েছে।

শুধু নীলফামারী বা পঞ্চগড় নয়; রংপুর বিভাগের অধিকাংশ জেলাতেই ব্যাপক শীতের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। জেলাগুলোতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ভেতরে রয়েছে। রাজশাহী বিভাগেও একই শীতের দাপট। আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা এম রুহুল কুদ্দুস জানান, রংপুর বিভাগের নীলফামারী ও কুড়িগ্রাম জেলার ওপর দিয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে। যে কারণে সেখানে ব্যাপক শীত পড়েছে। শীতের দাপট আরও কয়েকদিন থাকতে পারে।

আজ শুক্রবার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, নীলফামারী-কুড়িগ্রাম অঞ্চলের ওপর দিয়ে যে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলমান রয়েছে সেটি আরো বিস্তার লাভ করতে পারে। এছাড়াও রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের বাকি অংশ, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, সীতাকুণ্ড, রাঙামাটি, শ্রীমঙ্গল ও কুষ্টিয়া অঞ্চলে যে শৈতপ্রবাহ চলছে সেটি আরো বিস্তৃত হবে। দেশব্যাপী রাতের তাপমাত্রা একটু কমতে পারে। আর দিনের তাপমাত্রার তেমন কোন পরিবর্তন আসবে না।

মাঘ মাস আসার একদিন আগেই ঢাকাসহ দেশের মধ্য ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলেও শীত অনুভূত হচ্ছে। শুক্রবার রাজধানীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা গতকালে চাইতে প্রায় তিন ডিগ্রী সেলসিয়াস বেশি। এছাড়াও খুলনায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ২, চট্টগ্রামে ১৪, ময়মনসিংহে ১১ দশমিক ৬, রাজশাহীতে ৯ দশমিক ২, রংপুরে ৬ দশমিক ৮, সিলেটে ১৩ ও বরিশালে ১০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বোঝাই যাচ্ছে মাঘ মাসে এবার ব্যাপক শীত অনুভূত হবে।